রবিবার l ২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ l ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ l২০শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি
উল্লাপাড়ার মেধাবী ছাত্রী বৃষ্টি থামাতে চায় না লেখাপড়া - Daily Ajker Sirajganj
শিরোনাম:
দুই এমপি করোনায় আক্রান্ত শাহজাদপুরের বাঘাবাড়িতে একটি গ্রাম পুরুষ শূন্য সিরাজগঞ্জে পুরোহিত ও সেবাইতদের দক্ষতা বৃদ্ধি বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় আগামি ৬ ফেব্রুয়ারি পযর্ন্ত বন্ধ ফেরদৌস ওয়াহিদ রুশো’র মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ রায়গঞ্জের তীব্র শীতে ডিমের দোকানে উপচে পড়া ভিড় রায়গঞ্জে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের বিশেষ কার্যক্রম উদ্বোধন বেলকুচিতে অসহায়দের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন কাউন্সিলর আলম প্রামাণিক রায়গঞ্জে সাংবাদিক পুত্র সুব্রত কুমার পেলেন চীনের এক্সিলেন্ট স্টুডেন্ট অ্যাওয়ার্ড বেলকুচিতে ডেসওয়া ট্রাস্টের কমিটি গঠন

উল্লাপাড়ার মেধাবী ছাত্রী বৃষ্টি থামাতে চায় না লেখাপড়া

সাহারুল হক সাচ্চু :
সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বৃষ্টি খাতুন এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ ৫ পেয়েও পরিবারের আর্থিক অভাব অনটনের কারণে কলেজে ভর্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। উপজেলার সলপ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে সে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে এসএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ- ৫ পেয়েছে। উল্লাপাড়া উপজেলার সলপ গ্রামের ভূমিহীন দিনমজুর আইয়ুব আলীর মেয়ে বৃষ্টি খাতুন ২০১৮ সালে একই স্কুল থেকে জেএসসি পরীক্ষাতে গোল্ডেন জিপিএ-৫ এবং সাধারণ বৃত্তি পেয়েছিল। এছাড়া প্রথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষাতেও বৃষ্টি খাতুন জিপিএ-৫ পেয়ে বৃত্তি পেয়েছিল। বৃষ্টি খাতুনের বড় এক বোন রেহানা খাতুন স্থানীয় কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেছে ও ছোট ভাই আশিক সলপ উচ্চ বিদ্যালয়ে ১০ম শ্রেণিতে পড়ালেখা করছে।

 

তার মা নার্গিস খাতুন গৃহিণী। বৃষ্টি খাতুন স্থানীয় সাংবাদিকদের জানায়, নিজে প্রাইভেট পড়িয়ে ও প্রায় তিন বছর ধরে ব্যাগ সেলাই এর আয়ের টাকায় নিজের এবং তার ভাই বোনের পড়ালেখার খরচ করে আসছে। এখন ভালো কোনো কলেজে ভর্তি হলে তাকে অন্যত্র থাকতে হবে। এ কারণে ব্যাগ সেলাই করার আর কোন সুযোগ থাকবে না। এখন কলেজে ভর্তি এবং পড়ালেখায় প্রয়োজনীয় টাকা তার দিনমজুর বাবার পক্ষে যোগান দেওয়া সম্ভব নয়। এজন্য বৃষ্টি খাতুন এক ধরণের অনিশ্চয়তা নিয়ে এখন দিন পার করছে বলে জানা গেছে। সলপ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খায়রুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, বৃষ্টি খাতুন একজন মেধাবী ছাত্রী। গরীব পরিবারের সন্তান।

 

বৃষ্টির মা নার্গিস খাতুন বলেন, তার মেয়েটি খুবই মেধাবী, নিজ বাড়ীতে বিভিন্ন দোকানের কাপড়ের ব্যাগ সেলাই করে নিজেরসহ বোন ও ভাইয়ের পড়ালেখার খরচ চালিয়ে এসেছে। বৃষ্টি খাতুন পড়ালেখা করে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হতে চায়। দেশের সহৃদয়বান ব্যক্তিগণের কাছে তার মেয়ের লেখাপড়ায় সহযোগিতা দেবার আবেদন জানিয়েছেন। যোগাযোগের জন্য মোবাইল নম্বর- ০১৭৯৪৮৪০৪৯৮।

 

আজকের সিরাজগঞ্জ / মুক্তা পারভীন

© All rights reserved © 2017 Dailyajkersirajgonj.com

Desing & Developed BY লিমন কবির