রবিবার l ২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ l ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ l২০শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি
শীতের শুরুতেই সিরাজগঞ্জে বেড়েই চলেছে নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা - Daily Ajker Sirajganj
শিরোনাম:
দুই এমপি করোনায় আক্রান্ত শাহজাদপুরের বাঘাবাড়িতে একটি গ্রাম পুরুষ শূন্য সিরাজগঞ্জে পুরোহিত ও সেবাইতদের দক্ষতা বৃদ্ধি বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় আগামি ৬ ফেব্রুয়ারি পযর্ন্ত বন্ধ ফেরদৌস ওয়াহিদ রুশো’র মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ রায়গঞ্জের তীব্র শীতে ডিমের দোকানে উপচে পড়া ভিড় রায়গঞ্জে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের বিশেষ কার্যক্রম উদ্বোধন বেলকুচিতে অসহায়দের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন কাউন্সিলর আলম প্রামাণিক রায়গঞ্জে সাংবাদিক পুত্র সুব্রত কুমার পেলেন চীনের এক্সিলেন্ট স্টুডেন্ট অ্যাওয়ার্ড বেলকুচিতে ডেসওয়া ট্রাস্টের কমিটি গঠন

শীতের শুরুতেই সিরাজগঞ্জে বেড়েই চলেছে নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা

রোগীর চাপ সামলাতে বেগ পেতে হচ্ছে চিকিৎসকদের

নিজস্ব প্রতিবেদক :
আবহাওয়া পরিবর্তনের সাথে সাথে সিরাজগঞ্জে দিন দিন বেড়েই চলেছে নিউমোনিয়া-ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা। গত দুই সপ্তাহের চেয়ে বর্তমান সদর হাসপাতালসহ জেলার বিভিন্ন হাসপাতালেই নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়েছে দ্বিগুণ। হাসপাতাল গুলোতে শত শত রোগী চিকিৎসা নিচ্ছে এদের মধ্যে শিশুরাই বেশি।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল, নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বেসরকারি হাসপাতাল আভিসিনা, মেডিনোভা, কমিউনিটি হাসপাতাল, মইন উদ্দিন হাসপাতাল, শাখাওয়াত এইচ মেমোরিয়ালসহ বিভিন্ন হাসপাতালের শিশু বিভাগে শিশু ও তার স্বজনদের ভিড় চোখে পরার মত। শিশুদের পাশাপাশি আক্রান্ত হচ্ছে বয়স্করাও।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রতিদিন নতুন নতুন রোগীর চাপ সামলাতে বেগ পেতে হচ্ছে। এদিকে এ অবস্থায় শিশুর যত্ন নিতে অভিভাবকের আরও নজর ও মনযোগী হওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স আমিনা খাতুন বলেন, প্রতিদিন জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে শত শত শিশু চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে ভিড় করছে। এদের মধ্যে প্রায় ৬০ জনেরও বেশি শিশু সদর হাসপাতালের শিশু বিভাগের বাড়ান্দায় ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

সিরাজগঞ্জ কামারখন্দ উপজেলার পাইকোশা গ্রামের শাহাদতের ছেলে মোহাম্মদ আলী (১ বছর) শহরের ধানবান্ধি মহল্লার হুমায়রা (৬ মাস) বাগবাটি ইউনিয়নের মোরসালিন (৯ মাস)সহ প্রায় ৬০জনের বেশি রোগী ডায়রিয়া রোগে ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে অধিকাংশ শিশুর স্বজনেরা অভিযোগ করে বলেন, সময় মতো ডাক্তার আসে না। পর্যাপ্ত চিকিৎসক ও নার্স না থাকায় আমরা হতাশায় ভুকছি দ্রুত এসব সমস্যা সমাধানের জোরদাবি জানান রোগীর স্বজনরা।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের রেজিস্টার (শিশু) ডা. মো. মাহবুবুল আলম বলেন, ঠান্ডার কারনে ডায়রিয়া-নিউমোনিয়া বেড়ে গেছে, আতংকিত হওয়ার কারন নেই। খাবার স্যালাইন নিয়মিত খাওয়াতে হবে, গরম কাপর পরিধান করতে হবে। নিয়মিত ডাক্তারের পরার্মশ নিতে হবে।

সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. ফরিদুল ইসলাম বলেন, রোগীর স্বজনদের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। শীত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ার প্রকোপ বেড়ে যায়। পর্যাপ্ত ওষুধ সরবরাহ রয়েছে। প্রতিনিয়ত মনিটরিং করা হচ্ছে।

 

আজকের সিরাজগঞ্জ / মুক্তা পারভীন

© All rights reserved © 2017 Dailyajkersirajgonj.com

Desing & Developed BY লিমন কবির